রেজিস্ট্রেশন

ফ্রি টিউটোরিয়াল পেতে শিক্ষার্থী হিসেবে নিবন্ধন করুন

হোমিওডাইজেস্টে রেজিস্ট্রেশনকৃত শিক্ষার্থীদের জ্ঞাতব্য বিষয়াবলী:

১. হোমিওডাইজেস্টের ব্যবস্থাপনা, পরিচালনাসহ যাবতীয় বিষয়ে এর কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে গণ্য হবে।

২. এটি একটি শিক্ষামূলক প্লাটফর্ম এবং এটিকে কেবলমাত্র শিক্ষাগ্রহণ ও শিক্ষাপ্রদানের ক্ষেত্র হিসাবেই ব্যবহার করতে পারবেন। কোনরকম সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ধর্মীয় বা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে এখানে কোন কার্যক্রম গ্রহণযোগ্য হবে না।

৩. প্রকৃত ধারার হোমিওপ্যাথির চর্চা এবং হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক ও শিক্ষার্থীদের মাঝে এর বিস্তারই হোমিওডাইজেস্টের উদ্দেশ্য। মূলধারার সাথে সাংঘর্ষিক, বিতর্কিত বা মূলনীতি বহির্ভূত কোন কিছু এখানে গ্রহণযোগ্য হবে না।

৪. হোমিওডাইজেস্টে রেজিস্ট্রেশনকৃত চিকিৎসকগণ একটি পরিবারের অন্তর্ভুক্ত বলে গণ্য করা হবে। মেডিক্যাল ইথিকস যথাযথরূপে অনুসরণ করা এখানে বাধ্যতামূলক। ইথিকস বহির্ভূত কোন আচরণকে এখানে মেনে নেয়া হবে না।

৫. কোনরকম অন্তর্দ্বন্দ, বৈষম্য এখানে গ্রহণযোগ্য হবে না। কেবলমাত্র কাজ, যোগ্যতা ও উন্নতির প্রচেষ্টাকে বিবেচনা করেই এখানে মূল্যায়ন করা হবে। তবে বয়সেই হোক বা জ্ঞানে, সিনিয়র-জুনিয়রের স্বাভাবিক ভদ্রতা, সৌজন্যতা ও শ্রদ্ধাবোধ বাধ্যতামূলকভাবে সবাইকে রক্ষা করতে হবে।

৬. শিক্ষার্থীদের প্রকৃত হোমিওপ্যাথিক ধারায় প্রস্তুত হতে সহযোগিতা করা- এর মূল উদ্দেশ্যের অন্তর্ভুক্ত এবং শিক্ষার্থীগণ যেন উন্নত শিক্ষা পেতে পারেন- তার বন্দোবস্ত করা এর লক্ষ্য। শিক্ষার্থীগণও  সেই লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য তাদের প্রয়োজনীয় ব্যাপারগুলো হোমিওডাইজেস্টকে অবগত করবেন এবং হোমিওডাইজেস্ট তার রেজিস্ট্রেশনকৃত সম্মানিত চিকিৎসকমন্ডলীর সহায়তা নিয়ে- তাদের সে প্রয়োজনকে পূরণ করার প্রচেষ্টা চালাবে।

৭. একজন ভবিষ্যত হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক হিসাবে, শিক্ষার্থীদের জ্ঞান ও মানসিক বিকাশের লক্ষ্যে তাদের চলমান জিজ্ঞাসা, তাদের নিজেদের রচনা, গবেষণাধর্মী চিন্তা ইত্যাদি বিষয়গুলোকে হোমিওডাইজেস্ট গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করবে। হোমিওডাইজেস্ট তাদেরকে এ প্রকারের কাজে যুক্ত করার প্রচেষ্টা চালাবে। আগামীতে হোমিওডাইজেস্ট শিক্ষার্থীদের উন্নত মানের রচনাকেও প্রকাশ করার ব্যাপারে বিবেচনা করবে।

৮. হোমিওডাইজেস্ট থেকে হোমিওপ্যাথির উন্নয়ন ও শিক্ষাপ্রসারের লক্ষ্যে গৃহীত আইনত বৈধ সমস্ত উদ্যোগেই এই পরিবারের সকল যথাসম্ভব এগিয়ে আসতে হবে। নিজেদের সৃষ্টিশীলতা, গবেষণা, চিন্তা, ভাবনার দিয়ে বাংলাদেশের হোমিওপ্যাথিক সমাজকে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিতে তারা বদ্ধপরিকর থাকবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

৯. এর অন্তর্ভুক্ত সমস্ত শিক্ষার্থীদের নিজেদের যোগ্যতার ক্রমোত্তর বৃদ্ধি ঘটানোটা বাধ্যতামূলক, আর এই লক্ষ্যে তারা সম্প্রীতি ও ভাতৃত্ববোধ নিয়ে পরস্পরের সাথে যোগাযোগ রক্ষা, জ্ঞান-চর্চা, ও জ্ঞান চর্চার ক্ষেত্রে সর্বতোভাবে সাহায্য ও সহযোগিতা করবেন।

১০. ভবিষ্যতে হোমিওডাইজেস্টের বহুমূখী প্রকল্পভিত্তিক পরিকল্পনা রয়েছে। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায়ই কেবলমাত্র তা বাস্তবায়ন সম্ভব। কাজেই, প্রত্যেকেই প্রত্যেকের পরিপূর্ণ যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা ও সক্ষমতা নিয়ে এগিয়ে আসবেন।

১১. বাংলাদেশে প্রকৃত ধারা হোমিওপ্যাথিতে সমৃদ্ধ একটি শক্তিশালী চিকিৎসক সমাজ প্রস্তুত করার মাধ্যমে হোমিওপ্যাথির উন্নয়নই হোমিওডাইজেস্টের লক্ষ্য।